Monday, June 17, 2024
Homeজেলাবীরভূমকালো কলাই দিয়ে মা কালি তৈরি করে, তাক লাগিয়ে দিলেন আব্বাস আলী

- Advertisment -

কালো কলাই দিয়ে মা কালি তৈরি করে, তাক লাগিয়ে দিলেন আব্বাস আলী

সৌগত মন্ডল–রামপুরহাট, বীরভূম।রামপুরহাট ডাকবাংলো পাড়া প্লেয়ার্স এ্যাসোসিয়েশন পরিচালিত কালী পুজো যেটা দর্শনার্থীরা আব্বাস কালী পূজো বলে পরিচিত সেই আব্বাসএবার আব্বাস কালী পূজো বাইশ লক্ষ টাকার বিগ ব্যাজেটের পুজো। তবে গতবার করোনা ভাইরাসের কারণে কালীপুজো হয়েছিল কিন্তু  কালী পূজোয় এবার থাকছে বাড়তি চমক। ছিলোনা কোনো জাঁকজমক তাই এ বছর সাধারণ মানুষকে আনন্দ দিতে এই চমক বলে জানান পুজো উদ্যোগতারা।

রামপুরহাট ডাকবাংলো পাড়া প্লেয়ার্স এ্যাসোসিয়েশন পরিচালিত এই পুজোয় এবার মন্ডপ সজ্জায় ফুটে উঠবে রামপুরহাট শহরের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হাইস্কুল। কালো কলাই দিয়ে তৈরী করা হচ্ছে মা কালীর প্রতিমা। আরও থাকছে বাংলার বিখ্যাত চন্দন নগরের আলোক সজ্জা। এই পুজোর সমস্ত টাই দেখাশোনা করেন রামপুরহাট পৌরসভার চার নম্বর ওয়ার্ডে প্রাক্তন কাউন্সিলার তথা বর্তমান পৌর বোর্ড মেম্বার আব্বাস হোসেন। তিনি বলেন বড়ো পুজো হলেও এবার করোনা কালের সরকারি প্রোটোকল মেনেই দর্শনার্থীদের প‍্যাণ্ডেলে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে।মাস্ক ছাড়া কাও কে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না এছাড়াও রামপুরহাট শহর এ পুজো মণ্ডপের আশেপাশে বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবক দলের সদস্যরা ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকবেন এটা লক্ষ্য করার জন্য যাতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে প্রবেশ করা যায়

আর আজকের এই পুজো মণ্ডপের উদ্বোধন করলেন তৃণমূল সাংসদ শতাবদিরায় পশ্চিমবঙ্গ সরকারের ডেপুটি স্পিকার ডক্টর আসিস ব্যানার্জি এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন রামপুরহাট পৌরসভার পৌর প্রশাসক মীনাক্ষী ভগৎ রামপুরহাট মহকুমা পুলিশ আধিকারিক শাওন আহ্মেদ রামপুরহাট মহকুমা শাসক সাদ্দাম নাভাস এবং অন্যান্য ব্যক্তিগণ উদ্বোধন শেষে 100 অধিক বাচ্চাদের স্কুল ব্যাগ এবং বই প্রদান করা হয়

কালো কলাই দিয়ে মা কালি তৈরি করে, তাক লাগিয়ে দিলেন আব্বাস আলী

MORE NEWS -রাজস্ব আদায়ে দ্বিগুণ, বিক্ষোভ ট্রাক মালিকদের

পাথরবোঝাই গাড়ির উপর রাজস্ব আদায় দ্বিগুণ হয়ে যাওয়ার প্রতিবাদে, বীরভূমের রাজ গ্রামের রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ মিছিল ট্রাক মালিকদের । ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল, মঙ্গলবার সকাল দশটা থেকে পাথর বোঝাই লরি দাঁড় করিয়ে বিক্ষোভ দেখান, রাজগ্রাম মোহনপুর রাস্তার উপর হাজী বাগানের কাছে। ট্রাক মালিকদের দাবি, লকডাউনে আমাদের ব্যবসা ঠিকঠাক চলছে না। তার উপর রাজস্ব আদায় দ্বিগুণ। যেখানে ১০০ সেফটি পাথর উপর, ৪০০ টাকা করে দিতে হোত রাজস্ব আদায়। যেখানে আজ থেকে ১০০ সেফটি উপর ৮০০ টাকা করে গুনতে হচ্ছে CONTINUE READING

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Most Popular

Recent Comments